আজঃ শনি, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩

টমেটো

লিখেছেনঃ জিসান আহমেদ পঠিত 178 বার
টমেটো
টমেটো


টমেটো খাওয়ার উপকারিতা কি?

টমেটো দেখতে যেমন সুন্দর তেমনি এটি খেতেও অনেক মজাদার।টমেটো বিভিন্ন ভাবে খাওয়া যায়।যেমন-  ছালাত করে,চাটনি করে,জুস করে, স্যুপ করে এবং রান্না করেও খাওয়া যায়। টমেটো এক ধরনের মুখরুচি খাবার এতে রয়েছে অনেক উপকারিতা।

টমেটোর বিভিন্ন উপাদান আমাদের শরীরে পূর্ণ করে শরীর কে কর্মোঠ এবং সুস্থ করে তোলে।সুস্থ থাকার জন্য আমাদেরকে পরিমানমত টমেটো খেতে হবে।
টমেটো ক্যানসার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।হৃদপিণ্ডকে শক্তি শালি করে। টমেটোর ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন দেহের হাড় মজবুত করতে এবং ভাঙা হাড় জোড়া লাগাতে সাহায্য করে।

টমেটোর ভিটামিন-এ রাতকানা রোগ  নিরাময় করে,বয়স্কদের দৃষ্টি শক্তি বাড়ায়,মাথার চুল পড়া কোমায়।টমেটো কিডনিতে পাথর জমাট রোধ করে।টমেটো ওজন কমায় এবং বাতের ব্যাথা নিরাময় করে তুলতে সাহায্য করে। 

কাঁচা টমেটো খাওয়ার উপকারিতা কি ?

কাঁচা টমেটো প্রতিদিন ২টি করে খেলে সব উপাদান সরবরাহ করা সম্ভব।কাচা টমেটোতে আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন-এ  যা আমাদের তককে সূর্যের মারাত্মক রশ্মি থেকে বাচাতে সাহায্য করে। কাঁচা টমেটো ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভূমিকা পালন করে । কাঁচা টমেটো পানিশূন্যতা কমায়। কাঁচা টমেটো বিষন্নতা দুর করে এবং ঘুমের সমস্যা সমাধান করে ।

টমেটো খাওয়ার অপকারিতা কি কি?

টমেটোতে যেমন উপকারিতা আছে তেমনি আবার আছে অপকারিতা।টমেটো তে হিস্টামিন নামের একধরনের যৌগ আছে অতিরিক্ত খাওয়ার ফলে  এটা থেকে মুখে ছোপ ছোপ দাগ দেখা দেয়।


টমেটোতে এলার্জি আছে যাদের গায়ে তারা খেলে মুখ ফুলে যায় গলা এবং গায়ে চুলকানি বাড়ে,কাশি হতে থাকে। তাই যাদের এলার্জি আছে তারা টমেটো খবেননা।অতিরিক্ত টমেটো খাওয়ার ফলে ডায়রিয়া হতে পারে,হজমের সমস্যা হতে পারে,কিডনির সমস্যা হতে পারে এবং এসিডি এর সমস্যা হতে পারে।

টমেটোতে কি কি পুষ্টিগুন আছে?

টমেটোতে আছে বিভিন্ন ধরনের পুষ্টিগুন। যেমনঃ- 

  • ভিটামিন-এ
  • ভিটামিন-সি
  • ভিটামিন-কে
  • পটাসিয়াম
  • লাইকোপেন
  • থায়ামিন
  • নিয়াসিন
  • পাইরিমিডিন
  • ক্যারোটিন
  • ফলিক এসিড
  • ম্যাগনেসিয়াম
  • কপার
  • ক্যালসিয়াম এবং
  • ফসফরাস নিকটিনের মত খনিজ উপাদান।

টমেটো কিভাবে অনেক দিন সংরক্ষণ করা যায়?

টমেটো বিভিন্ন ভাবে সংরক্ষণ করে রাখা যায়। যেমনঃ

  • ডিপ ফ্রিজে প্যকেট জাত করে রাখা যায়।
  • টমেটোর চাটনি তৈরি করে রাখা যায়।
  • টমেটোর আচার তৈরি করে রাখা যায়।
  • টমেটোর জুস তৈরি করে রাখা যায়।

টমেটো হচ্ছে সবজি জাতিয় ফল।সারা বিশ্বে টমেটো অনেক বেশি জনপ্রিয়।এর চাহিদা মেটাতে প্রয় সারা বছরই টমেটোর চাষ করা হয়।বাংলাদেশে শিতকালে টমেটোর চাষ বেশি করা হয়।